আজওয়ান দিয়ে নদী সিনার দুটি ভিন্নধর্মী রেসিপি

বেগুনী বা ডিম চপ তো রোজ খাওয়া হয়। এই খাবারগুলোই চেষ্টা করতে পারেন একটু ভিন্ন ভাবে ব্যতিক্রমী দুটি রেসিপি দিয়েছেন নদী সিনা। আসুন, জেনে নেই সহজ রেসিপি দুটো।

আজওয়ান দিয়ে ডিম চপ

উপকরণ:
ডালের বেসন ১/৪ কাপ,
ময়দা ১/৩ কাপ,
মরিচ গুঁড়া আধ চা-চামচ,
ডিম ৬ টি সিদ্ধ করে মাঝখানে কেটে নিতে হবে।
বেকিং পাউডার ১/২ চা-চামচ,
লবণ পরিমাণমতো,

তেল (ভাজার জন্য) পরিমাণমতো।
আদা এবং রসুন বাটা আধা চা-চামচ,
পানি ১/৩ কাপ
চাট মসল্লা ১/২ চা চামচ
জর্দার রং সামান্য
আজওয়ান ১/২ চা চামচ

প্রণালি:
ডিম ও তেল বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে মিলিয়ে পানি দিয়ে থকথকে গোলা করে ১ ঘণ্টা ঢেকে রাখতে হবে। কেটে নেয়া ডিম এ চাট মসল্লা মাখিয়ে রাখতে হবে। কড়াইয়ে তেল গরম করে ডিম বেসনের গোলায় ডুবিয়ে ডুবোতেলে ছাড়তে হবে। মচমচে বাদামি রং করে ভাজতে হবে। তেল থেকে উঠিয়ে কিচেন টাওয়েল অথবা কাগজের ওপর রাখতে হবে।এর পর যেকোনো সস দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

আজওয়ান দিয়ে বেগুনি

উপকরণ:
ডালের বেসন ১/৪ কাপ,
ময়দা ১/৩ কাপ,
মরিচ গুঁড়া আধ চা-চামচ,
লম্বা বেগুন ১-২টি,
বেকিং পাউডার ১/২ চা-চামচ,
লবণ পরিমাণমতো,
তেল (ভাজার জন্য) পরিমাণমতো।
আদা এবং রসুন বাটা আধা চা-চামচ,
পানি ১/৩ কাপ
চাট মসল্লা ১/২ চা চামচ
জর্দার রং সামান্য
আজওয়ান ১/২ চা চামচ

প্রণালি:
বেগুন ও তেল বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে মিলিয়ে পানি দিয়ে থকথকে গোলা করে ১ ঘণ্টা ঢেকে রাখতে হবে। বেগুন পাতলা টুকরা করে কেটে সামান্য লবণ মাখিয়ে রাখতে হবে। কড়াইয়ে তেল গরম করে বেগুন বেসনের গোলায় ডুবিয়ে ডুবোতেলে ছাড়তে হবে। মচমচে বাদামি রং করে ভাজতে হবে। তেল থেকে উঠিয়ে কিচেন টাওয়েল অথবা কাগজের ওপর রাখতে হবে।এর পর যেকোনো সস দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

8 − five =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.